ঢাকা   ২০ জুলাই ২০২৪ | ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  আ.লীগ সমর্থককে জোর করে লিফলেট দিচ্ছে বিএনপি নেতারা (রাজনীতি)        স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে নাহিয়ানের, ফেব্রুয়ারিতে উৎক্ষেপণ হবে রকেট (বাংলাদেশ)        নির্বাচন আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ: ওবায়দুল কাদের (জাতীয়)        ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সবাই আতঙ্কের মধ্যে দিন পার করছে:রিজভী (জাতীয়)        আপিলে এ পর্যন্ত প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন ১৬৮ জন (জাতীয়)        প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গণভবনে রওশন এরশাদ (জাতীয়)        মেজর হাফিজকে বিদেশ যেতে দেয়নি সরকার (জাতীয়)        ভয়ংকর টর্নেডোয় তছনছ টেনেসি, নিহত কমপক্ষে ৬ (জাতীয়)        ২০০৯ সালের পরে শেখ হাসিনা নির্বাচন কমিশনকে স্বাধীন করেছেন : ওবায়দুল কাদের (জাতীয়)        অবরোধের সমর্থনে গুলশানে শ্রাবণের নেতৃত্বে মশাল মিছিল (জাতীয়)      

মিরাজ-শান্তর প্রশংসায় সাকিব

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:11:09 pm, 2023-10-07 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

বিশ্বকাপ আসরে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচে জয়ের পথ রচনা করেছিলেন সাকিব আল হাসানই। আফগানিস্তানের দুই ওপেনার যখন রীতিমত চোখ রাঙানি দিচ্ছিল তখন সাকিবই ব্রেক থ্রু এনে দেন। এরপর আরও দুটি গুরুত্বপূর্ণ শিকার ধরে আফগানদের রাশ টেনে ধরেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। সেই পথে হেটেই পরে আলো ছড়ান মেহেদি হাসান মিরাজ। বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও আলো ছড়িয়ে ম্যাচের নায়ক মিরাজই। সাথে অপরাজিত ফিফটি করে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত।

ভারতের  ধর্মশালায় হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে শনিবার আফগানিস্তানকেও ৬ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারায় বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে মিরাজ আর শান্তর ভূয়সী প্রশংসা করেন সাকিব।

‘মিরাজ আর শান্ত আমাদের ইনফর্ম খেলোয়াড়। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, সবসময় আত্মবিশ্বাসী থাকে তারা এবং দলের জন্য ভালো কিছু করতে চায়।’

বল হাতে ২৫ রানে ৩ উইকেট নেয়ার পর ব্যাটিংয়ে ৫৭ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলেন মিরাজ। অপরাজিত ৫৯ রান করে দলের জয় অবদান রাখেন ইনফর্ম শান্ত। সাকিব ৩০ রানে নেন ৩ উইকেট।

মূলত সাকিবের বোলিংই ম্যাচের দৃশ্যপট পাল্টে দেয়। দুর্দান্ত  শুরু করা আফগানিস্তানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙ্গে বাংলাদেশকে লড়াইয়ে ফেরার পথ দেখান সাকিব।

বাংলাদেশের পেস আক্রমনের বিরুদ্ধে  স্বাচ্ছেন্দ্যে খেলে অনায়াসে রান তুলেছিলো আফগানিস্তানের দুই ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ ও ইব্রাহিম জাদরান। প্রথম জাদরানকে শিকার করে দলের অন্যান্য বোলারদের আত্মবিশ্বসী করে তুলেন সাকিব। এতে ঘুড়ে দাঁড়িয়ে নিজেদের সেরা রুপে ফিরতে পারে বাংলাদেশের বোলাররা। পরবর্তীতে লড়াইয়ে ফিরে দ্রুতই আাফগানিস্তানের উইকেট শিকারে মুন্সিয়ানা  দেখিয়েছে তারা।

সাকিব বলেন, ‘আমাদের শুরুটা প্রত্যাশানুযায়ী হয়নি। তবে একবার উইকেট পাওয়া শুরু করলে সেটা একবার উইকেট পাওয়া শুরু করলে আমরা আরও (দ্রুত) পেতে থাকবো- এমন বিশ্বাস সকলের মধ্যেই ছিল। বিষয়টা  সহজ ছিল না, তারপরও আমরা যেভাবে বোলিং করেছি তাতে আমি খুব খুশি। সত্যিই গত কয়েকদিন কঠোর অনুশীলন করছি এবং মাঠটি খেলার মত আদর্শ না হবার পরও আমরা কোনও অজুহাত দিতে চাইনি। ড্রেসিংরুমে এটি নিয়ে (এমন পরিস্থিতি সত্ত্বেও আমাদের মানিয়ে নিতে হবে এবং ভাল খেলতে হবে) কথা বলেছিলাম আমরা।’

নিজের বোলিং নিয়ে সাকিব বলেন, ‘দলের জয়ে  বল হাতে  অবদান রাখতে পেরে আমি খুশি। যেমনটা আমি বলেছিলাম আমাদের পাঁচজন বোলারই ভালো করেছে ও অবদান রেখেছে। স্পিনাররা অনেক বড় ভূমিকা পালন করেছে। কিন্তু এটি অনেক বড় টুর্নামেন্ট। আমি নিশ্চিত, পেসাররা আরও অবদান রাখতে পারবে।’